বঙ্গবন্ধুর ছবি বয়ে নিয়ে চলছেন অটো রিক্সা চালক জিল্লু

0
309

মাসুদ রেজা শিশির ॥
বঙ্গবন্ধুকে চোখে দেখিনি তাঁর ঐতিহাসিক ভাষণকে ধারণ করে আজও বুকের মধ্যে স্বপ্ন লালন করে আসছি, ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃতি দেওয়ার পরদিন থেকেই নিজের একমাত্র জীবিকা নির্বাহের যানবাহন অটো রিক্সার উপরে বঙ্গবন্ধুর ছবি স্থাপন করে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালবাসা দেখিয়ে আসছি।

বুধবার জিল্লু নামের এক অটোবাইক চালক কথা বলতে বলতে এসব কথা বলেন। জিল্লু রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের চর সাঁজুরিয়া গ্রামের আজিমদ্দিন মন্ডলের ছেলে।
৩ ভাই ২ বোনের মধ্যে জিল্লু ২য়। তার বড় ভাই আব্দুল মতিন একজন বাক প্রতিবন্ধী, পিতা আজিমুদ্দিন বয়সের ভারে নুয়ে পড়েছেন, অটো রিক্সা চালক বলেন পিতার কাছে শুনেছি স্বাধীনতা যুদ্ধের কথা তিনি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেছিলেন, তবে তার কোন স্বীকৃতি নেই। এ নিয়ে আমাদের কোন আক্ষেপও নেই। বাবার মুখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথাও শুনেছি ছোট বেলা থেকেই। আমরা বঙ্গবন্ধুর আর্দশ মেনে জীবন পরিচালনা করে আসছি, দরিদ্র হওয়া সত্ত্বেও কারো কাছে হাত না পেতে অটো চালিয়ে সংসার চালাচ্ছি। ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত পড়া লেখা করার পর আর্থিক সমস্যার কারনে আর পড়া লেখা হয়নি। জীবন জীবিকার তাগিদে আজ অটো রিক্সা চালাচ্ছি।

বন্ধবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭মার্চের ভাষণ আর্ন্তজাতিক ভাবে স্বীকৃতি দেওয়ার দিন থেকেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি কে বুকে ধারণের পাশাপাশি অটো রিক্সার উপরে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বাঙালি জাতির অহংকার শেখ মুজিবুর রহমানের ছবিকে স্থাপন করে ভাড়ায় যাত্রী বহন করে চলেছি।

আপনার ইচ্ছে কি? এমন এক প্রশ্নের জবাবে ওই জিল্লু বলেন, আমার স্বপ্ন আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আমার দুই চোখে একবার কাছ থেকে দেখতে চাই।

স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে তারা জানান, পরিবারটি ছোট বেলা থেকেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কট্টর সমর্থক হিসাবে এলাকায় পরিচিতি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাত পাবে কি এই স্বপ্নবাজ অটো রিক্সা চালক জিল্লু?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here