বলিউড কাঁপাবে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’!

0
11

শেষ হলো অপেক্ষার, ইউটিউবে মুক্তি পেইয়েছে সালমান খানের আপকামিং ফিল্ম ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ এর ট্রেলার। ভরপুর অ্যাকশনে সমৃদ্ধ তিন মিনিটের এই ট্রেলার মোটামুটি ঝড় তুলেছে ইউটিউবে। যশরাজ ফিল্মজের ব্যানারে আলী আব্বাস জাফরের পরিচালিত এই সিনেমায় সালমান খানের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে অভিনয় করছেন ক্যাটরিনা কাইফ। এই সিনেমার আগের ভার্সন ‘এক থা টাইগারে’ও জুটি বেঁধেছিলেন এই দুজনই।
ইরাকে জঙ্গীরা অপহরণ করেছে পঁচিশজন ভারতীয় নার্সকে, তাদের পরিণতি হতে পারে ভয়ানক কিছু। কিন্ত হাল ছেড়ে দেবে না ভারত, নিজেদের সেরা এজেন্টকে এই অপারেশনে পাঠাচ্ছে তারা, পঁচিশজন নার্সকে জীবিত উদ্ধার করে নিরাপদে ফিরিয়ে আনার এই আপাত অসম্ভব কাজের ভারটা পড়েছে টাইগাররূপী সালমানের কাঁধে- এমনই একটা গল্পের ওপর নির্মিত হয়েছে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। ট্রেলার দেখে বোঝা গেছে, সারভাইভাল থ্রিলার হতে চলেছে এটা।
টাইগার হিসেবে আবার ফিরছেন সালমান, জোয়া চরিত্রে ফিরছেন ক্যাটরিনাও। দুজনের জুটিটা রূপালী পর্দায় দারুণ আকর্ষণীয়, এই ধুন্ধুমার মারামারির মধ্যেও তাদের একচিলতে প্রেম থাকছেই। তবে থ্রিলারে সেই প্রেম কতটা জমবে- সেটা সিনেমা রিলিজ পেলেই বোঝা যাবে। ব্যকগ্রাউন্ড স্কোর করেছেন বিশাল-শেখর, গোলাগুলির পটভূমিতেও যথেষ্ট প্রশংসা পাবার মতো কাজ করেছেন তারা। সিনেমার নির্মাণের পেছনে যে দলটা ছিলেন, তারা চেয়েছেন ভারতীয় স্ট্যান্ডার্ডের সীমানা ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক মানের একটা অ্যাকশান ফিল্ম দর্শকদের উপহার দিতে। ট্রেলারে সেটার ছাপ বিদ্যমান।
‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ সিনেমায় অ্যাকশান ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করেছেন টম স্ট্রুথার্স। নাম শুনে চিনতে না পারলে জেনে নিন, এই মানুষটা অ্যাকশান সিকোয়েন্স পরিচালনা করেছেন ক্রিস্টোফার নোলানের বিখ্যাত ‘ব্যাটম্যান ট্রিলজি’ সিরিজে, ইনসেপশন আর ডানকির্কের মতো সিনেমাতেও ছিলেন তিনি। ক্যাটরিনা কাইফ প্রশিক্ষন নিয়েছেন সত্যিকারের সিক্রেট এজেন্টদের কাছ থেকে। স্পাইরূপী জোয়া চরিত্রটাকে খানিকটা রহস্যের চাদরে মুড়িয়ে রাখতে চেয়েছেন পরিচালক। টাইগারলে সঙ্গ দিচ্ছে সে, লড়ছে একই শত্রুর বিরুদ্ধে। সিনেমায় অস্ত্রশস্ত্রের মেলা তো ছিলই। বাস্তব একটা পরিবেশ আর আবহাওয়া পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে কার্পণ্য করেননি কেউই। তবুও এরমধ্যে ক্যাটরিনার কণ্ঠের হিন্দিটা শুনতে বিরক্তিকর লাগতে পারে অনেকের কাছে।
২০১৫ সালে ইরাকে পঁচিশজন নার্সকে জিম্মি করেছিল জঙ্গীরা, পরে ভারতীয় সরকারের প্রচেষ্টায় মুক্তি পায় তারা- এই বাস্তব ঘটনাটাকেই একটু ভিন্নভাবে সাজিয়ে সেলুলয়েডে ধারণ করেছেন আলী আব্বাস জাফর। সিনেমার শুটিং হয়েছে আবুধাবী, গ্রীস, অস্ট্রিয়া আর মরক্কোতে। প্রতিটা জায়গারই আলাদা উপস্থিতি আছে, সিনেমার গল্পে ভূমিকা আছে প্রতিটা দেশের। ট্রেলারে চোখে লেগে থাকার মতো একটা দৃশ্য হচ্ছে সালমানের ঘোড়ায় চড়ার ফাইটিং সিকোয়েন্সটা, সেটার শুটিং মরক্কোতে হয়েছে। আর সালমানের সিনেমার ট্রেডমার্ক দুর্দান্ত ডায়লগ, সেটারও উপস্থিতি ছিল ট্রেলারে। সালমানকে বলতে শোনা গেছে- “শিকার তো সবাই করে, কিন্ত টাইগারের মতো চমৎকারভাবে কেউ শিকার করতে পারে না…” সালমানভক্তদের উন্মাদনায় ভাসানোর জন্যে এই একটা লাইনই যথেষ্ট!
‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ এর ট্রেলার সাড়া ফেলেছে বলিউড সেলিব্রেটি আর সুপারস্টারদের মধ্যেও। পরিচালক করণ জোহর তো ট্রেলারকেই ‘ব্লকবাস্টার’ খেতাব দিয়ে ফেলেছেন! অভিনেতা অনিল কাপুরও এই সিনেমা ব্লকবাস্টার হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন টুইটারে। আগের কিস্তি ‘এক থা টাইগারে’র পরিচালক কবির খানও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তিন মিনিটের এই ট্রেলারকে, এটাকে তিনি বলেছেন ‘ধামাকাদার ট্রেলার’।
বাইশে ডিসেম্বর সিনেমা হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। খুব ব্যতিক্রম কিছু না হলে সালমানের ক্যারিয়ারে আরেকটি ব্লকবাস্টার ফিল্ম যোগ হতে যাচ্ছে এটার মাধ্যমে। ইউটিউবে মুক্তির প্রথম দুুই দিনে বাইশ মিলিয়ন বার দেখা হয়েছে এর ট্রেলারটি। ডোয়াইন জনসনের হলিউডি সিনেমা জুমানজি ভারতে মুক্তি পাবার কথা ছিল একই দিনে, কিন্ত টাইগারের থাবার সামনে নাকাল অবস্থা হবার আশঙ্কায় এটার পরিবেশকরা নাকি মুক্তির তারিখ পিছিয়ে দিতে চাইছেন। বলিউড হোক কিংবা হলিউড, সালমানের সঙ্গে টক্করে যাওয়াটা মুখের কথা নয় মোটেও!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here