গোয়ালন্দে শীতকালীন সবজি পরিচর্যায় ব্যস্ত চাষিরা

0
165

কামাল হোসেন ॥
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার চরাঞ্চলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ চাষিরা লোকসান পুষিয়ে নিতে আগাম টমেটো সহ বিভিন্ন শীতকালীন সবজি চাষে ঝুঁকেছেন। ভালো বাজারদর পেতে সবজি দ্রুত বাজারে তুলতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন তারা।
সরেজমিনে চর কর্ণেশনা ও ছাত্তার মেম্বার পাড়া এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বিগত বন্যায় বর্ষাকালীন সবজি লাউ, কুমড়া, করলা, শশা চাষ করে লোকসান গুণতে হয়েছে চাষিদের। বন্যায় সর্বশান্ত হয়েছে তারা। লোকসান পুষিয়ে নতুন করে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য আগাম টমেটো, পেয়াজ, করলা, কফি, কাঁচা মরিচ, বেগুন, রসুন চাষ করে ভাগ্য বদলের স্বপ্ন দেখছেন এসব চাষিরা। এবার উপজেলার শত শত হেক্টর জমিতে আগাম শীতকালীন সবজি চাষ করেছেন তারা। ফলনও হয়েছে ভালো। এসব সবজি ক্ষেত ভাল রাখতে রাত-দিন সমান তালে েেতর পরিচর্যা করছেন। আবহাওয়া ও বাজার দর অনুকূলে থাকলে আগাম সবজি চাষের মাধ্যমে বন্যার তি কাটিয়ে ওঠার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।
সোরাপ মন্ডলের পাড়ার চাষি করিম বেপারী ও চর কর্ণেশনা এলাকার চাষি লালন ফকিরসহ অনেকেই বলেন, গত বন্যায় শত শত বিঘা জমি চাষ করে আমরা সর্বশান্ত হয়েছি । এবার অনেকেই অনেক ধার-দেনা করে আগাম শীতকালীন সবজি টমেটো, বেগুন, কাঁচা মরিচ, পেয়াজ, রসুন, করলাসহ বিভিন্ন ফসলের চাষ করেছে । এ ছাড়াও উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের সহস্রাধিক চাষি এ বছর জমিতে আগাম উচ্চফলনশীল জাতের টমেটো সহ বিভিন্ন ধরনের সবজির আবাদ করেছে। এবার ফলনও ভালো হয়েছে। পেয়াজ ও টমেটোর ভাল দামও পেয়েছি, অন্যান্য সবজির ভাল দাম পেলেই আমরা সকলেই চিন্তা মুক্ত হই।
গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. রকিবুল ইসলাম বলেন, এ বছর উপজেলায় ১৫৩০ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি চাষের লক্ষ্য মাত্রা থাকলেও নদী ভাঙ্গন ও গত বন্যায় লোকসানের কারণে প্রায় ১০৫০ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজির আবাদ করেছে চাষিরা। চাষাবাদে এখানকার চাষিরা বেশ তৎপর। বিশেষ করে সবজি চাষে চাষিরা বেশ সাফল্য এনেছেন। আগাম টমেটো সহ নানান প্রকারের সবজি চাষে ঝুঁকছেন তারা। স্থানীয় কৃষি অফিস থেকে চাষিদের মাঝে বিনা মূল্যে বীজ, সার, কীটনাশকসহ নানা কৃষি উপকরণ দেওয়া হয়। পাশাপাশি চাষিদের সবধরণের সবজি চাষের জন্য পরামর্শ ও সহায়তা দেওয়া হয়ে থাকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here