সিগারেট কিনে না দেওয়ায় বালিয়াকান্দিতে ব্যবসায়ীকে মারধোরের অভিযোগ

0
581

এক প্যাকেট বেনসন সিগারেট না দেওয়ায় রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি খোন্দকার বাশারুল আলম বাপ্পুর হাতে মারধোরের শিকার হয়েছে এক ব্যবসায়ী। ওই ব্যবসায়ীর নাম, মোঃ মনিরুল ইসলাম। তিনি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী ব্যাপারী পাড়া গ্রামের হাশেম ব্যাপারীর ছেলে। এ ব্যাপারে শুক্রবার বালিয়াকান্দি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।
মো: মনিরুল ইসলাম (৩২) লিখিত অভিযোগে বলেন, উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী মিয়াপাড়া গ্রামের চুন্নু মিয়ার ছেলে ও বালিয়াকান্দি উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি খন্দকার বাশারুল হক বাপ্পু (৫০) গত ২০ জানুয়ারী রাত ৯ টার দিকে নবাববাড়ী বাজার সিরাজের চায়ের দোকান তাকে বেনসন সিগারেট না পেয়ে মারধোর করে। অভিযোগে আরো বলেন, বাপ্পু এলাকার চাঁদাবাজ প্রকৃতির লোক। ইতিপূর্বে আমার খালার নিকট থেকে একাধিকাবার টাকা নিয়ে আর ফেরত দেয়নি। আমার নিকট থেকেও বিভিন্ন সময় টাকা দাবী করে। আমি তাকে টাকা না দেওয়ায় আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন ক্ষতি করার হুমকি দেয়। আমি ওইদিন আমার কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে সিরাজের দোকানে চা পান করছিলাম। ওই সময় আমার নিকট থেকে এক প্যাকেট বেনসন সিগারেট দাবী করে। আমি তাকে সিগারেট কিনে দিতে অস্বীকার করায় আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে কিলঘুষি মারে। দোকান থেকে কাঠের বাটাম এনে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করতে গেলে ঘটনাস্থলে থাকা সবাই সেটি ঠেকিয়ে তাকে নিবৃত করে এবং আমাকে ঘটনাস্থল থেকে আমার বন্ধুরা নিয়ে আসে। সেখান থেকে চলে আসার সময় পরবর্তীতে হত্যা করে লাশ গুম করে ফেলবে বলে হুমকি প্রর্দশন করে। স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিয়ে ও পারিবারিক ভাবে আলাপ আলোচনার পর থানায় অভিযোগ করেছি।
এ বিষয়ে উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি খোন্দকার বাশারুল আলম বাপ্পু বলেন, নবাবপুর ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এম.এ কুদ্দুস সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করায় তাকে ধমক দেওয়া হয়েছে। কোন মারধোর করা হয়নি।
বালিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ তারিকুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপুর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here