৪ ঘন্টায় ১২শতাধিক ট্রাক পার ॥ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে পন্যবাহি ট্রাকের চাপ

0
168
ফাইল ফটো

করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সরকার ঘোষিত লকডাউনের মধ্যেও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে পন্যবাহি ট্রাকের অতিরিক্ত চাপ লক্ষ্য করা গেছে। এর মধ্যেই মঙ্গলবার ভোর রাতে মাত্র ৪ ঘন্টায় দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে জরুরী সেবার এ্যাম্বুলেন্স এবং পচনশীন কাঁচামালবাহী ট্রাক সহ ১২শ ২৯টি ট্রাক নদী পার হয়েছে।
জানাগেছে, সারাদেশে করোনা সংক্রমনের হার বেড়ে যাওয়ায় সরকার সারাদেশে ৭ দিনের লকডাউন ঘোষনা দেয়। লকডাউনে জরুরী সেবার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও পন্যবাহী ট্রাক ব্যাতিত যাত্রীবাহি পরিবহন, ট্রেন, দোকান-পার্ট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়। সেই ধারাবাহিকতায় সারা দিন দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে জরুরী সেবার এ্যাম্বুলেন্স ও লাশবাহি গাড়ি পারাপারে ২টি ছোট ফেরি সচল রাখা হয়েছে। এছাড়া পচনশীন ও কাঁচামালবাহী ট্রাক পারাপার করতে রাত ২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত সচল রাখা হয়েছে ফেরি।
এদিকে মঙ্গলবার সকালে দৌলতদিয়ার ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক ও ঘাট থেকে ১৪ কিলোমিটার দুরের গোয়ালন্দ মোড়ের সড়কে পন্যবাহি ট্রাকের দীর্ঘ সিরিয়াল রয়েছে। এছাড়া এ সময় বিচ্ছিন্ন ভাবে ব্যাক্তিগত কয়েকটি ছোট গাড়ি ও পাঁয়ে হাটা যাত্রীদের ফেরি ঘাটে দেখা গেছে।
বিআইডব্লিউটিসি সূত্র জানায়, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ১৬টি ফেরি প্রস্তুত থাকলেও করোনা সংক্রমন রোধে সীমিত আকারে ফেরি চালু রাখা হয়েছে। পর্যাপ্ত ফেরি সচল রাখলে স্বাস্থ্যবিধি ঠিক রেখে সাধারন যাত্রীদের ভীর সামাল দেয়া অসম্ভব হয়ে পড়ে।
বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক ফিরোজ শেখ জানান, দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে রাত ২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত প্রায় ১২’র বেশি পন্যবাহি ট্রাক পারাপার হয়েছে। এছাড়া এম্বুলেন্স, লাশবাহি গাড়ি পারাপারে সার্বনিক দুইটি ফেরি সচল রয়েছে। তাছাড়া কোন যাত্রীবাহি যানবাহন পারাপার করছেন না। তবে নদী পারের অপোয় ট্রাকের সিরিয়াল রয়েছে বলে তিনি স্বীকার করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here