মানিকগঞ্জের মেয়রের ছবিই ইজিবাইকের লাইসেন্স!

0
387

নিজের ছবি সংযুক্ত নম্বর প্লেট দিয়ে অবৈধ ইঞ্জিন চালিত অটোরিকশা পৌরসভায় চলাচলের অনুমতি দিয়েছেন মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম। এরপর থেকে পৌরসভার অলিতে-গলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এ সমস্ত অবৈধ ইঞ্জিন চালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইক।
জানা যায়, গত কয়েক বছর আগে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু তাহের পৌরসভার খালপাড় এলাকায় ইজিবাইকের ধাক্কায় নিহত হন। এছাড়াও আহত হন কয়েক শতাধিক পথচারী। সাধারণ যাত্রীদের কিছুটা সুবিধা হলেও এখন পৌরসভার মানুষের কাছে ইজিবাইক নামটি মরণঘাতী শব্দে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন কোনো না কোনো দুর্ঘটনার অভিজ্ঞতা নিয়ে বাড়ি ফিরছেন মানুষ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড থেকে শহীদ রফিক সড়ক হয়ে বাজার, বেউথা হয়ে বয়েজ স্কুল মাঠ, নয়াকান্দি থেকে দুধবাজারসহ পৌর এলাকায় সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে এ সব অবৈধ ইজিবাইক ও অটোরিকশা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। যেখান থেকেই ছেড়ে আসুক না কেন এই ইজি বাইকগুলো হাসপাতাল গেট, ওয়ার্লেস গেট, জেলা পরিষদ গেট, খালপাড়, কোর্ট চত্বর, সুইট হ্যাভেন, মহিলা কলেজ গেট, কালিবাড়ী মোড়, প্রেসকাব, স্বর্ণকার পট্টি মোড়সহ নানা জায়গাতে থামিয়ে যত্রতত্র যাত্রী ওঠা-নামা করে আর এ কারণে শহরের রাস্তায় যানজট লেগেই থাকে। এখন আবার নতুন করে পৌর মেয়র নিজের ছবি সংযুক্ত করে পৌরসভায় চলাচলের জন্য পুরাতন লাইসেন্সকে নবায়ন করে নম্বর প্লেট দিচ্ছে আর নিজের এ ছবি সংযুক্ত করা নম্বর প্লেটের বিষয়টিকে পৌরবাসী নির্বাচনী প্রচারণা বলে মনে করছেন।
পৌর এলাকার সাব্বির নামে এক ব্যক্তি বলেন, এমনিতেই এ অবৈধ ইজিবাইকের যন্ত্রনায় অতিষ্ঠ তার মধ্যে মেয়র আবার নিজের ছবি সংযুক্তি দিয়ে এ সমস্ত যানবাহনের বৈধতা দেওয়ার চেষ্টা করছে। কিভাবে শহরে যানজট নিরসন করা সম্ভব তা না করে উনি নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে আরও একজন বলেন, মেয়র নির্বাচনী প্রচারণা চালাবে সেটা আমাদের বিষয় না। শহরের ভিতর চলাচলের জন্য কিছু পরিমাণ ইজিবাইক চলাচলের অনুমতি দেওয়া যেতে পারে তাই বলে কিন্তু কয়েক শতাধিক চলাচলের অনুমতি দিয়েছে মেয়র সাহেব। এ বিষয়টা ঠিক করেননি।
মানিক নামে এক ইজিবাইক চালক বলেন, আমার গাড়ির লাইসেন্স নষ্ট হয়ে যাওয়ায় আবেদন করি এবং আমাকে একটি নির্দিষ্ট ফি দিয়ে মেয়র সাহেরের ছবি সংযুক্ত নম্বর প্লেট নিতে হয়েছে। প্রথম দুই একদিন যাত্রীরা বলেছে ইজিবাইক কি মেয়রের তখন তাদের এ কথার উত্তর দিতে হয়েছে, এটা আমাদের গাড়ির নতুন ডিজিটাল নম্বর প্লেট।
মানিকগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম সুলতানুল আজম খান আপেল বলেন, নির্বাচনী প্রচারণার জন্য মেয়র সাহের নিজের ছবি সংযুক্ত করে অবৈধ ইজিবাইকের লাইসেন্সের নম্বর প্লেট দিয়েছে। আমি আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে বিষয়টি উপস্থাপন করেছি কিভাবে এ ধরনের কাজ করছেন। বিষয়টি দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি বলেছি।
এ বিষয়ে মানিকগঞ্জ পৌর মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিমের সঙ্গে তার ব্যক্তিগত মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিয়েও যোগায়োগ করা সম্ভব হয়নি ।
মানিকগঞ্জের ট্রাফিক পরিদর্শক (টিআই) আবেদ আলী বলেন, শহরে কিছু কিছু স্থানে পৌরসভার লাইসেন্স বিহীন ইজিবাইক চলাচল করছে তবে মূল শহরে যাতে কোনো ধরনের অবৈধভাবে ইজিবাইক চলাচল করতে না পারে সেজন্য আমাদের নিয়মিত অভিযান চলমান আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here