1. jitsolution24@gmail.com : Rajbaribd desk : Rajbaribd desk
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:২১ অপরাহ্ন

গোয়ালন্দে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ১১০৮ Time View

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় বিথী আক্তার নামের এক গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিথী উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের মঙ্গলপুর গ্রামের আব্দুল হকের মেয়ে।

ঘটনার পর থেকে গৃহবধুর স্বামী মিলন মোল্যা পালাতক রয়েছে। সে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের পরশ উল্লাহ মাতুব্বর পাড়ার মৃত বারেক মোল্যার ছেলে। মঙ্গলবার সকালে স্বামীর বাড়ি থেকে নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

নিহতের স্বামীর বাড়ি চর দৌলতদিয়া পরশ উল্লাহ মাতুব্বর পাড়ায় গিয়ে দেখা যায়, বাড়ি ভরা অনেক লোকজন। উঠানে একটি খেজুর পাতার উপর শুয়ে রাখা হয়েছে লাশ। পাশে বসে আছেন নববধুর শ^াশুরি আম্বেয়া বেগম (৫০)। তবে শ^াশুরি পাশে বসে থাকলেও তার চোখে ছিলনা কোন শোকার্তের পানি। বাড়ির ভিতর একটি টিনের বড় ছাপড়া ঘর।

রের মাঝে পাটকাঠির বেড়া দেয়া। বেড়ার এক পাশে কক্ষে তিনি ও তার বড় ছেলে ফেলা মোল্যা থাকেন। অপর পাশে মিলন ও তার স্ত্রী বিথী থাকতো। কিভাবে বিথী মারা গেছে সঠিক কারণ বলতে পারেননি তিনি। শুধু বলেন, সকালে আমি বিথীকে ডাকতে গিয়ে দেখি হাত-পা শক্ত হয়ে বিছানায় পড়ে আছে। তাড়াতাড়ি তাকে বের করে মাথায় পানি দিয়ে দেখি সে মরে গেছে।

বিথীর বড় দুই দুলাভাই কাদের মোল্যা ও আল মামুন লিটন রাজবাড়ীবিডিকে জানান, এক মাস আগে মিলনের সাথে বিথীকে বিয়ে দেওয়া হয়। এসময় মিলনকে নগদ ৬০ হাজার টাকা ও এক ভরি স্বর্ণের গহনা যৌতুক হিসেবে দেওয়া হয়। মাঝেমধ্যে তারা শুনতেন দুজনের ঝগড়া হতো। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লাগতেই পারে তাই এ নিয়ে কিছু বলতেননা। আজ সকালে বিথীর মৃত্যুর সংবাদ শুনে ছুটে আসেন। অভিযোগ করে বলেন, মিলন শ^াসরোধ করে বিথীকে হত্যার পর বাড়ি থেকে পালিয়েছে।

স্থানীয় ৯নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আক্তারুজ্জামান মৃধা বলেন, নিহত নববধুর স্বামী মিলন ও তার বড় ভাই পলাতক রয়েছে। মিলন এলাকায় ভাড়ায় মোটরসাইকেলে যাত্রী ভাড়া টানার কাজ করতো। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মির্জা আবুল কালাম আজাদ রাজবাড়ীবিডিকে বলেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনাটি সন্দেহজনক মনে হচ্ছে। নিহতের লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী শেষে ময়না তদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্ততি চলছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design by: JIT Solution