দৌলতদিয়ায় ১৩শ যৌনকর্মী পেল খাদ্য সহায়তা

0
281

সর্বাত্মক লকডাউনের কারণে খরিদ্দারের আনাগোনা কমে যাওয়ায় অসহায় হয়ে পড়েছে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লির যৌনকর্মীরা।
পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানের সংগঠন উত্তরণ ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে বৃহস্পতিবার দুপুরে পল্লীর ১৩ শ যৌনকর্মীর মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বিতরন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এসময় অতিরিক্ত পুলিশ (অপরাধ ও প্রশাসন) মোঃ সালাহউদ্দিন, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর, অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
বিতরনকৃত সামগ্রীর মধ্যে ছিল পোলার চাউল ১কেজি, সয়াবিন তেল ১ কেজি, ডাউল ৫০০ গ্রাম, চিনি ১ কেজি, সেমাই ১ প্যাকেট, দুধ ১ প্যাকেট, বিষ্কুট ১ প্যাকেট, খেজুর ৫০০গ্রাম, আলু ১ কেজি, পিয়াজ ১ কেজি, ছোলা ১ কেজি এবং সাবান ১ টি।
যৌনপল্লীর পাশ্ববর্তী উত্তর দৌলতদিয়া সোহরাপ মন্ডল পাড়ায় ইউপি সদস্য আব্দুল জলিল ফকিরের বাড়ির আঙ্গিনা হতে এ খাদ্য সামগ্রীগুলো বিতরণ করা হয়।
যৌনকর্মীদের সংগঠন অসহায় নারী ঐক্য সংগঠনের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম বলেন, করোনার কারণে গত একটি বছর ধরে দৌলতদিয়া যৌনপল্লির বাসিন্দারা অসহায় জীবনযাপন করছে।দুঃসময়ে বারবার পল্লীর এসকল অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোয় আমরা ডিআইজি স্যারের প্রতি চির কৃতজ্ঞ।
এ সময় জেলা পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বলেন, ডিআইজি হাবিবুর রহমান স্যার তার উত্তরন ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন অসহায় মানুষের জন্য কাজ করেন। যৌনকর্মীরা তাদের অন্যতম।গতবছর লকডাউনের সময়ও দেশের সর্ববৃহৎ এ যৌনপল্লীতে ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে ব্যাপক ত্রান কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
এবারো তিনি খবর পেয়ে চলমান লকডাউনে অসহায় যৌনকর্মীদের পাশে দাড়ালেন। এ কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে চলমান থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here