বালিয়াকান্দিতে স্কুলমাঠে নির্মাণ সামগ্রী ॥ খেলাধুলা বন্ধ হওয়ায় ক্ষোভ

0
242

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের ঘিকমলা উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে নির্মাণ সামগ্রী রাখায় খেলাধুলা বন্ধ হয়ে পড়েছে। এতে অভিভাবক ও খেলায়ারদের মাঝে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের রুরাল কানেকটিভিটি ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট ( আরসিআইপি) এডিবি এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে বালিয়াকান্দি-জিসি মৃগী জিসি ভায়া নারুয়া জিসি রোড ( চে: ০+০০০ কি.মি. ১২+৩০০ কি.মি.) সড়ক ১৫,৫৫,০৪,১৫০৪০ টাকা মূল্যে কাজ শুরু করে ঠিকাদার মীর হাবিবুল আলম, উত্তর ঝরগাছা, নাটোর। কাজ শুরুর তারিখ ৩০-০৯-২০২০, কাজ সমাপ্তি ৩০-৪-২০২২ইং। তত্বাবধায়নে বালিয়াকান্দি এলজিইডি।
ঘিকমলা এলাকার জুয়েল রানা বলেন, ঘিকমলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ফুটবল মাঠে সড়কে কাজ শুরুর পর থেকেই নির্মাণ সামগ্রী রাখে। এতে এলাকার ছেলেরা প্রতিদিন যে ফুটবল, ক্রিকেট, ব্যাড মিন্টনসহ নানা ধরণের খেলা করতো, তা বন্ধ হয়ে গেছে। ঠিকাদার কার কাছে শুনে খেলার মাঠে ইটের খোয়া বালু রাখলো, তা আমাদের বোধগম্য নয়।
স্থানীয় ইউপি সদস্য বিল্লাল হোসেন বলেন, স্কুলের খেলার মাঠে নির্মাণ সামগ্রী রাখার কারণে এলাকার যুব সমাজের খেলাধুলা বন্ধ হয়ে পড়েছে। এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। প্রায় ৬মাস ধরে খেলাধুলা বন্ধ। আমরা প্রশাসনের নিকট দ্রুত পদক্ষেপ কামনা করছি।
ঘিকমলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুভাষ কুমার বলেন, নির্মাণ সামগ্রী রাখার আগে আমার নিকট থেকে অনুমতি নেয়নি। নির্মাণ সামগ্রী রাখার পর আমার কাছে আসে। বলে কয়েকদিন রাখবো, মাঠে বালু দিয়ে দিবো। তবে তিনি এ বিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করিনি।
উপজেলা প্রকৌশলী আলমগীর বাদশা বলেন, এটা আমাদের দেখায় বিষয় নয়। এটা ঠিকাদার কোথায় মাল রেখে কাজ করতে তাদের বিষয়। যদি এমনটি করে থাকে, তাহলে কাজ ঠিক করেনি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আম্বিয়া সুলতানা বলেন, বিষয়টি খোজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here