গোয়ালন্দে আউশ ধানের বাম্পার ফলন

0
161

মোজাম্মেল হক ॥
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ফসলের মাঠে শুরু হয়েছে আউশ ধান কাটার উৎসব। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় আউশ ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এ বছর আউশের ফলন দেখে কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসি।
এবার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ফলন হওয়ায় আউশ চাষে ঝুকছে কৃষক। উপজেলার কৃষকেরা উন্নত জাতের (ব্রি ধান৪৮) আউশ ধান চাষ করে অন্যান্য বছরের তুলনায় বেশি ফলন পেয়েছেন তারা। উন্নত জাতের ধান বীজ অনেকই চরাঞ্চলের কৃষকেরা চাষাবাদ করে থাকেন।ধানবীজগুলো কাজল আইল, ভিন্নাতোয়া, ধলবাচাই,চিনাল ধান, পাইজামধান, নাজির আইল, বাতুন ধান, জিইস ধান ইত্যাদি। মূলত হাইব্রিড ধান বীজ যে কোন মৌসুমে ভালো ফলন দিয়ে থাকে।
কৃষক মুকুল সরদার বলেন, আমি এ বছরে ৪ বিঘা জমিতে আউশ ধান আবাদ করেছি। গেলো বছরের চেয়ে এবার আমার জমিতে আউশ ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। আগামী বছরে আরো বেশি করে হাইব্রিড আউশ ধান আবাদ করবো। কৃষক আক্কাছ বিশ্বাস বলেন, আমারদের বাপ দাদাদের আমল থেকে আমাদের চাষের জমিতে আউশ ধান বীজ সংগ্রহ করে চাষ আবাদ করতাম। এতে সমস্যা হলো বিভিন্ন ধরনের মিশ্রিত ধান হতো এবং ফসলও অনেকটা কম হতো। এখন আধুনিক চাষা আবাদের সাথে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী কোম্পানির উন্নতমানের হাইব্রিড আউশ ধানের বীজ সংগ্রহ করে প্রতি বিঘা জমিতে ৮থেক ৯ মণ করে ফলন ঘরে তুলতে সক্ষম হচ্ছি।
উপজেলা কৃষি অফিসার মো. রকিবুল ইসলাম বলেন, এই উপজেলার কৃষকেরা পূর্বের স্থানীয় আউশ ধানের আবাদ করতো। এ বছরে সরকার কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের প্রণোদনা ও বীজ সার দিয়ে চাষীদের উৎসাহিত ও সহযোগিতা করেছে। এতে করে কৃষকেরা উৎসাহিত হয়ে জমিতে ব্যাপক আউশ ধান চাষ করেছে তাতে বাম্পার ফলন হয়েছে। এতে উপজেলার আউশ ধান চাষে লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here