1. jitsolution24@gmail.com : Rajbaribd desk : Rajbaribd desk
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন

রাজবাড়ীতে প্রকাশ্যে ছাত্রলীগ নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি ও যুবককে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার ॥
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২
  • ৮০৫ Time View

রাজবাড়ী শহরের বেড়াডাঙ্গায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি, পরে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে এক নম্বর বেড়াডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
সংঘর্ষে একজন গুরুতর আহত হয়েছে। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে, বিকালে রাজবাড়ী পৌরসভার কাউন্সিলর আবু মোঃ হাসানের নেতৃত্বে বেড়াডাঙ্গা নবারুন সংঘের মাঠে ছাত্রলীগের নেতা রাজুকে লক্ষ্য করে গুলি করা ও মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের দাবীতে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ছাত্রলীগের উদ্যোগে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে ও পরে প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ করেছে। এলাকায় উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
আহত ব্যক্তির নাম ফরহাদ হোসেন ওরফে বাপ্পী (৩৫)। তিনি রাজবাড়ী পৌর শহরের এক নম্বর বেড়াডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা। বাপ্পীর বাবার নাম আবদুল আজিজ খান।
স্থানীয় সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে ফরহাদ হোসেন ওরফে বাপ্পী ও নাহিদুল ইসলাম ওরফে রাজুর মধ্যে পূর্ব বিরোধ রয়েছে। রাজু জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি। রাজু ও প্লাবন নামে আরেক যুবক বেড়াডাঙ্গা জামে মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হয়। এসময় বাপ্পী ও সজীবদের সঙ্গে তাদের কথাবার্তার একপর্যায়ে বাগবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে রাজু ও প্লাবনকে উদ্দেশ্য করে তিন রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়। কিন্তু গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এসময় বাপ্পীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়। বাপ্পীকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ইনচার্জ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, আহত ব্যক্তির মাথায় ধারালো অস্ত্রের তিনটি চিহ্ন রয়েছে। শরীরের লাঠির আঘাতের চিহ্ন আছে। তাকে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে। দুপুরেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে বিকাল থেকেই বেড়াডাঙ্গা এলাকাবাসী বাপ্পীকে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে সোচ্চার হয়ে ওঠে এলাকাবাসী। সন্ধ্যা ৭টার দিকে ছাত্রলীগের ব্যানারে শহরে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সেখানে বক্তৃতা করেন, জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান হাফিজ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এরশাদ, এরফানুল হক অন্তর, রুহুল আমিন প্রমুখ।
এসময় তারা বলেন, রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলীর নাম ভাঙ্গিয়ে বাপ্পী এলাকায় মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি, অস্ত্রবাজি করে আসছে। এ কারণে রাজবাড়ী প্রশাসনকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ গ্রেপ্তার দাবী জানান।
তারা বলেন, বাপ্পী একজন চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে অনেক মামলা রয়েছে। সে এলাকায় মাদক ব্যবসা, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধের সাথে জড়িত।
রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান বলেন, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে (বাপ্পী-রাজু) বিরোধ রয়েছে। বিরোধের সূত্র ধরে এই ঘটনাটি ঘটেছে। আমরা সবকিছু তদন্ত করে দেখছি। কেউ থানায় লিখিত ভাবে অভিযোগ দায়ের করে নাই। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কাউকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি। তবে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design by: JIT Solution