1. jitsolution24@gmail.com : Rajbaribd desk : Rajbaribd desk
বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন
Title :
রাজবাড়ীর শিক্ষার্থীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ ‘দূস্কৃতিকারী যারাই হোক ছাড় দেওয়া হবে না’ -জিল্লুল হাকিম এমপি সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে যুবলীগের বিক্ষোভ কথা রাখছে না বিদ্যুত বিভাগ গোয়ালন্দে ৩৫০০ দূর্বল শিক্ষার্থীর জন্য বিশেষ ক্যাচ-আপ ক্লাবের যাত্রা শুরু বঙ্গবন্ধু ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘর এখন রাজবাড়ীতে, দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভির রাজবাড়ীতে ৫১ জন দুস্থ ও তৃতীয় লিঙ্গের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ খালেদা জিয়ার জন্মবার্ষিকী ও রোগমুক্তি কামনায় রাজবাড়ীতে দোয়া মাহফিল গোয়ালন্দে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ২জন গ্রেপ্তার বালিয়াকান্দিতে স্কুলে শোক দিবসে বাজলো হিন্দি গান, তদন্ত কমিটি গঠন

গোয়ালন্দ বাজার থেকে মদের দোকান সরাতে সামাজিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৭
  • ৯৪৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার ॥
গোয়ালন্দ শহরের প্রাণকেন্দ্র আড়তপট্টি এলাকা হতে দেশী মদের দোকানটি অন্যত্র সরিয়ে নিতে দেয়া ৩ মাসের আল্টিমেটামের ২ মাস পার হয়েছে। এ বিষয়ে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক অনুসন্ধান করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য গোয়ালন্দে তৎকালীন ইউএনও হাসান হাবীবকে নির্দেশ দেন। কিন্তু তিনি কোন প্রতিবেদন দেননি। ইতিমধ্যে তিনি এ উপজেলা হতে বদলী হয়ে গেছেন। তার ভুমিকা নিয়ে স্থানীয় জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

 




এদিকে ওই দেশী মদের দোকান স্থানান্তরের উদ্যোগ না নিলে ওই দোকানে তালা ঝুলিয়ে দেয়ার ঘোষনা দিয়েছে এলাকাবাসী। দোকানটি সরিয়ে নেয়ার দাবিতে আয়োজিত মাবনবন্ধনে এ ঘোষনা দেয়া হয়। বৈধ দোকান হলেও এখান থেকে প্রতিদিন বিপুল পরিমান মদ অবৈধ ভাবে বিভিন্ন জায়গায় পাচার হওয়ার অভিযোগ করা হয় মানববন্ধনে। এতে মদে সয়লাব হয়ে গেছে উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে মহল্লা।

গত ৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফকীর মহিউদ্দিন আনছার ক্লাবের সামনে মদের দোকান সরানোর দাবীতে গোয়ালন্দবাসীর ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। মানববন্ধন হতে মদের দোকানটি সরাতে ৩মাসের আলটিমেটাম দেয়াসহ ৫শতাধিক লোকের স্বাক্ষর সহ জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি দেয়া হয়।

মানববন্ধনে দাবি করা হয় নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে অবাধে মদ বিক্রি করায় বর্তমানে উপজেলার আনাচে-কানাচে মদে সয়লাব হয়ে গেছে। শহরের গুরুত্বপূণ স্থানে মদের দোকান থাকায় প্রতিনিয়ত ওই এলাকায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। সরকারি লাইসেন্সধারী মাদকসেবীদের কাছে মদ বিক্রির কথা থাকলেও উঠতি বয়সের যুবকরা খুব সহজে সংগ্রহ করতে পারছে দেশি মদ।

র্তমানে উপজেলার বিভিন্ন মুদি দোকান, সেলুন, এমনকি বাড়ি-ঘরে রেখেও খুচরো ব্যবসায়ীরা এ মদ বিক্রি করছেন।

এদিকে গত বুধবার সন্ধায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফকীর মহিউদ্দিন আনছার ক্লাব চত্ত্বরে মদের দোকান অপসারণ আন্দোলনের আহবায়ক ফকীর আঃ মান্নানের সভাপতিত্বে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌর মেয়র শেখ মোঃ নিজাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মাহবুবুর রাব্বানী, পৌর কাউন্সিলার নাসির উদ্দিন রনি, আলাউদ্দিন মোল্লা, বিশিষ্ট নাট্যাভিনেতা প্রণব ঘোষ সহ অন্যান্যরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মদের দোকানের সামনে ক্যাম্প করে অবৈধভাবে মদ বেচাকেনা বন্ধের জন্য সামাজিক ভাবে প্রতিরোধ গড়ার সিদ্ধান্তসহ দোকান অপসারণে ধারাবাহিক আন্দোলন কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার উপজেলায় সদ্য যোগদানকারী ইউএনও আবু নাসার উদ্দিনের সাথে একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাত করেন।

এ ব্যাপারে ইউএনও আবু নাসার উদ্দিন রাজবাড়ীবিডিকে বলেন, মদের দোকান অপসারনের ব্যাপারে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনার আলোকে তিনি দ্রুত অনুসন্ধান করে প্রতিবেদন জমা দেবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design by: JIT Solution