1. jitsolution24@gmail.com : Rajbaribd desk : Rajbaribd desk
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন
Title :
রাজবাড়ীতে মাইক্রোবাসের চাপায় বাইসাইকেল আরোহীর মৃত্যু পাংশায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ॥ নারীসহ আহত-৫ বালিয়াকান্দিতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হিজড়াদের মধ্যে সংঘর্ষে ৫জন আহত রাজবাড়ীতে রাজু মেডিকেল কর্ণারকে জরিমানা পাঁচুরিয়ায় ভয়ভীতি দেখিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ সাংবাদিক লিটন চক্রবর্তীকে হয়রানীর প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে মানববন্ধন মাদকসহ সকল অপরাধ নির্মূল করতে কাজ করছে জেলা পুলিশ -পুলিশ সুপার পুলিশকে তথ্য দিয়ে পুরুস্কার পেলেন গ্রাম পুলিশ রাম প্রসাদ রাজবাড়ীতে পদ্মায় বালু উত্তোলনকালে হামলায় একব্যাক্তি গুলিবৃদ্ধ রাজবাড়ীতে পাসপোর্ট অফিসের দালালদের হাতে মার খেলেন সেবা গ্রহিতা

পাবনায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থী নেতা জুলহাস নিহত ॥ রাজবাড়ীতে স্বস্তি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
  • ১২২৩ Time View

রাজবাড়ী জেলার সীমান্তে পাবনার ঢালারচরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থী নেতা জুলহাস বাহিনীর প্রধান জুলহাস মণ্ডল (৪২) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

 




নিহত জুলহাস দড়িরচর মণ্ডলপাড়া গ্রামের জসিম ওরফে জেসেম মণ্ডলের ছেলে। রাজবাড়ী জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে তার ব্যপক প্রভাব ছিল। সে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার খবরে সে সকল অঞ্চলে স্বস্তি ফিরে এসেছে। এছাড়া তবে জুলহাসের রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপ্রসাদপুর গ্রামে আরেকটি বাড়ী রয়েছে বলে জানা গেছে। সেখানে তার স্ত্রী ও সন্তানরা বসবাস করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেছেন, জেলা সদরের গঙ্গাপ্রসাদপুর, মৃধা কলেজ এলাকা, সূর্যনগর, মহাদেবপুর, জৌকুড়া এলাকায় ব্যাপক প্রভাব ছিলো জুলহাসের। এই সব এলাকার বেশির ভাগ চাকুরীজীবিরা তার চাঁদাবাজীর শিকার হয়েছেন। চাঁদা না দিলে অনেকেই তার ও তার গ্রুপের লোকদের অত্যাচারের শিকার হয়েছেন। যে কারণে অনেকেই ওই সব এলাকা ছেলে জেলা শহরে অথবা জেলার বাইরে পরিবার পরিজন নিয়ে অবস্থান করছেন। ফলে জুলহাসের নিহত হবার খবরে তাদের মধ্যে স্বস্থি ফিরে এসেছে।

রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই হিরণ কুমার বিশ^াস জানান, জুলহাস রাজবাড়ী জেলা সদরের মিজানপুর ইউনিয়ন এবং চন্দনী ইউনিয়নের জৌকুড়া ফেরী ঘাট এলাকায় প্রভাব বিস্তার করেছিল। তার গ্রুপের সদস্যরা পাবনার একাধিক গ্রুপের সাথে প্রতিদ্বন্দীতার মাধ্যমে পদ্মা নদীসহ আশপাস চালায় চাঁদাবাজী করতো। একটি অস্ত্র মামলায় বেশ কিছু দিন সে রাজবাড়ী জেলা কারাগারে আটক ছিলো। কয়েক বছর আগে সে মুক্তিপায়। আর মুক্তিপাবার পর থেকেই চলে যায় আতœগোপনে। আতœগোপনে থেকে সে রাজবাড়ী ও পাবনা অঞ্চলের সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালন করতো। যে কারণে তাকে গ্রেপ্তার করতে উভয় জেলার পুলিশ তৎপর ছিলো।

রাজবাড়ীর সাবেক পুলিশ সুপার ও পাবনার বর্তমান পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম সাংবাদিকদের জানান, বেশ কয়েকটি মামলার আসামি ও চরমপন্থী নেতা জুলহাস মণ্ডলকে সম্প্রতি ঢাকা মহানগর পুলিশের নিউ মার্কেট থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) তাকে পাবনার আমিনপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে তার সহযোগী ও ব্যবহৃত অস্ত্র গোলাবারুদ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেয় পুলিশকে। এরপর আমিনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সুকুমার মোহন্তের নেতৃত্বে মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে জুলহাসকে নিয়ে দড়িরচরে অভিযানে যায় পুলিশ। পথিমধ্যে ঢালারচরের বালাজ মেম্বারের মোড় নামক স্থানে জুলহাসকে ছিনিয়ে নিতে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। এরই মাঝে পুলিশ হেফাজত থেকে পালিয়ে যায় জুলহাস। প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে চলা বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জুলহাসকে উদ্ধার করে বেড়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, এএসআই ফরিদুল ইসলাম, কনস্টেবল রেজাউল ইসলাম, নুরুল ইসলাম ও কামরুজ্জামান। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দু’টি দেশি পাইপগান, একটি দেশি পিস্তল, দু’টি রাম দা, ৭ রাউন্ড বন্দুকের গুলি, এক রাউন্ড পিস্তলের গুলি, একটি গুলির খোসা, একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, নিহত জুলহাস চরমপন্থী দলের আঞ্চলিক নেতা ও জুলহাস বাহিনীর প্রধান ছিল। সে পাবনা, রাজবাড়ী ও কুষ্টিয়া অঞ্চলে চাঁদাবাজি, হত্যা, অপহরণ, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিল। তার বিরুদ্ধে আমিনপুর, রাজবাড়ী ও কুষ্টিয়া থানায় হত্যাসহ ৯টি মামলা রয়েছে। বুধবার সকালে তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design by: JIT Solution